শপথ অনুষ্ঠানে কুরআন তিলাওয়াত শুনলেন ট্রাম্প (ভিডিও সহ)

বিস্তারিত দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন
Loading...

গত ২১ জানুয়ারি ওয়াশিংটনের ন্যাশনাল ক্যাথেড্রালে আমেরিকার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অভিষেকের পর মাল্টি প্রার্থনা অনুষ্ঠানের শুরুর দিকে ডালাস মুসলিম সোসাইটির এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর ও ভার্জিনিয়ার বড় মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মোহাম্মাদ মাজিদ পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত করেন। খবর ইলমফিড ডটকম।

প্রথাগতভাবেই প্রত্যেক দেশের প্রেসিডেন্টের কাজ শুরু করার পূর্বে এধরনের প্রার্থনা অনুষ্ঠান হয়ে থাকে। আমেরিকার প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের সময় থেকেই বিভিন্ন ধর্মের নেতাদের উপস্থিতিতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে  বিগত সব প্রেসিডেন্ট তাদের কাজ শুরু করেছেন। সেই রেওয়াজটি এখনো অব্যাহত রয়েছে।

আমেরিকার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে ইমাম মোহাম্মাদ মাজিদ কুরআনুল কারিম থেকে যে আয়াতগুলো তিলাওয়াত করেছেন।

তারপর ইমাম মোহাম্মাদ মাজিদ সুরা রুমের ২২নং আয়াত তিলাওয়াত করেন।

আমেরিকার ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এবারের অভিষেক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধর্মের ২৬ জন ধর্মীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন। এরমধ্যে ভার্জিনিয়ার বড় মসজিদের ইমাম মোহাম্মাদ মাজিদ মুসলিম প্রতিনিধি হিসেবে সেখানে উপস্থিত ছিলেন এবং কুরআন তিলাওয়াত করেন।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর নির্বাচনকালীন সময় থেকে শুরু করে অভিষেক অনুষ্ঠান পর্যন্ত মুসলমানসহ অন্যান্যদের সম্পর্কে যে সব বক্তব্য-বিবৃতি প্রদান করেছে, সে সব বক্তব্য-বিবৃতির বিবেচনায় কুরআনের উল্লেখিত আয়াত দুটিকে নির্বাচন করেন ইমাম মোহাম্মদ মাজিদ।এই আয়াতের মাধ্যমে তিনি এ বার্তা জানিয়ে দেন যে, সব ধর্ম-বর্ণ-গোত্র ও দলের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা প্রত্যেকের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। এ ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল রাষ্ট্র প্রধানদের দায়িত্ব আরো বেশি। তাই কুরআনের আয়াতদ্বয় ট্রাম্পের উদ্দেশ্যে রাজনৈতিকভাবে ধর্মীয় সহিংসতা বন্ধে শান্তি ও কল্যাণের লক্ষ্যে একটা ম্যাসেজও বটে।

ভিডিওটি দেখুন-

বিস্তারিত দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন
x